রোববার   ১৭ জানুয়ারি ২০২১   মাঘ ৪ ১৪২৭   ০৩ জমাদিউস সানি ১৪৪২

পরিক্ষামূলক প্রচার

৪১৭

পাঁচ মাসে রেমিট্যান্স বেড়েছে ২৩ শতাংশ

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ২ ডিসেম্বর ২০১৯  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

অক্টোবরের তুলনায় নভেম্বর মাসে রেমিট্যান্স কমলেও সার্বিকভাবে অর্থবছরের প্রথম পাঁচ মাসে (জুলাই-নভেম্বর) রেমিট্যান্স বেড়েছে প্রায় ২৩ শতাংশ। নভেম্বরে রেমিট্যান্স কমার কারণ সম্পর্কে ব্যাংক কর্মকর্তারা বলছেন, আন্তর্জাতিক ছুটির কারণে গত নভেম্বরে কর্মদিবস ছিল ১৯ দিন। কর্মদিবস বেশি থাকলে রেমিট্যান্স আরও বাড়ত। 

সদ্যসমাপ্ত নভেম্বর মাসে ১৫৫ কোটি ৫২ লাখ ডলারের সমপরিমাণ রেমিট্যান্স দেশে পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা। এই অঙ্ক গত বছরের নভেম্বরের চেয়ে ৩১ দশমিক ৭৫ শতাংশ বেশি। গত বছরের নভেম্বর মাসে রেমিট্যান্স এসেছিল ১১৮ কোটি ডলার।

এ নিয়ে চলতি ২০১৯-২০ অর্থবছরের পাঁচ মাসে (জুলাই-নভেম্বর) রেমিট্যান্স এসেছে ৭৭০ কোটি ৯৪ লাখ ডলার, যা গত অর্থবছরের একই সময়ের চেয়ে ২২ দশমিক ৬৬ শতাংশ বেশি। ২০১৮-১৯ অর্থবছরের জুলাই-নভেম্বর সময়ে রেমিট্যান্স এসেছিল ৬২৮ কোটি ৮২ লাখ ডলার।

দুই শতাংশ প্রণোদনা, জনশক্তি রপ্তানি বৃদ্ধি এবং বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের দাম বাড়ায় রেমিট্যান্স প্রবাহ বাড়ছে বলে মনে করছেন অর্থনীতিবিদ ও ব্যাংকাররা।

বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তারা বলছেন, আন্তর্জাতিক ছুটি মিলিয়ে নভেম্বর মাসে কর্মদিবস ছিল ১৯ দিন, অক্টোবর মাসে যেখানে ছিল ২৩ দিন। নভেম্বর মাসে কর্মদিবস বেশি থাকলে রেমিট্যান্সের পরিমাণ আরও বাড়ত।

গতকাল বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রকাশিত রেমিট্যান্সের হালনাগাদ তথ্যে দেখা যায়, চলতি নভেম্বর মাসে ১৫৫ কোটি ৫২ লাখ ২০ হাজার ডলারের রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা। এর আগের মাস অক্টোবরে ১৬৪ কোটি ডলারের রেমিট্যান্স পাঠিয়েছিলেন প্রবাসীরা, যা ছিল এক মাসের হিসাবে বাংলাদেশের ইতিহাসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রেমিট্যান্স। এর আগে সেপ্টেম্বরে রেমিট্যান্স এসেছিল ১৪৬ কোটি ৮৪ লাখ ডলার। অর্থবছরের প্রথম মাস জুলাইয়ে এসেছিল ১৫৯ কোটি ৭৭ লাখ ডলার। আগস্টে আসে ১৪৪ কোটি ৪৭ লাখ ডলার।

২০১৮-১৯ অর্থবছরে আগের অর্থবছরের তুলনায় ৯ দশমিক ৬০ শতাংশ বেশি রেমিট্যান্স পাঠিয়েছিলেন প্রবাসীরা। এর আগে ২০১৭-১৮ অর্থবছরে রেমিট্যান্সে প্রবৃদ্ধি ছিল আরও বেশি, ১৭ দশমিক ৩২ শতাংশ। ২০১৮-১৯ অর্থবছরে এক হাজার ৬৪১ কোটি ৯৬ লাখ ডলারের রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা। ২০১৭-১৮ অর্থবছরে এসেছিল এক হাজার ৪৯৮ কোটি ১৭ লাখ ডলার।

চলতি অর্থবছর থেকে প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্সে দুই শতাংশ প্রণোদনা দেওয়া হচ্ছে। প্রবাসীরা এখন ১০০ টাকা দেশে পাঠালে এর সঙ্গে আরও দুই টাকা যোগ করে মোট ১০২ টাকা তুলতে পারছেন তাদের স্বজনরা।