শনিবার   ২৪ জুলাই ২০২১   শ্রাবণ ৯ ১৪২৮   ১৪ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

পরিক্ষামূলক প্রচার

৬৩৬

শ্যামনগরে স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যার স্বামীর আত্মহত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ৮ ডিসেম্বর ২০১৯  

প্রতীক ছবি

প্রতীক ছবি

শনিবার দিনগত রাতে সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলায় মুন্সীগঞ্জ ইউনিয়নের জেলেখালী গ্রামের  স্ত্রীকে কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে হত্যার পর স্বামী আত্মহত্যা করেছেন। নিহতরা হলেন- স্বামী আবদুল মান্নান (৫০) ও তার স্ত্রী সোনা বিবি (৪০)।

নিহত সোনা বিবি কালিঞ্চি গ্রামের মো. সিরাজ গাজীর মেয়ে ও স্বামী আবদুল মান্নান জেলেখালী গ্রামের সোহরাব গাজীর ছেলে।

নিহত স্ত্রী সোনা বিবির মরদেহ পাওয়া গেছে বাড়ির নিকটস্থ ঈদগাহ চত্বরে। স্বামী মান্নানের মরদেহ ঝুলছিল পাশের একটি রেইনট্রির ডালে বলে জানায় পুলিশ।

রোববার সকালে সাতক্ষীরার শ্যামনগর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) ইয়াসিন গাজী জানান, সোনা বিবি আবদুল মান্নানের দ্বিতীয় স্ত্রী।

শনিবার রাতে কোনো একসময় এ ঘটনা ঘটে। সোনা বিবির দেহে কুড়ালের কোপের দাগ রয়েছে। তার মরদেহ ছিল ঈদগাহ চত্বরে। অন্যদিকে মান্নান ছিলেন পার্শ্ববর্তী একটি রেইনট্রির ডালে মোটা রশিতে ঝুলন্ত অবস্থায় ছিল।

পুলিশ পরিদর্শক আরও জানান, জেলেখালী আবদুল মান্নানের বাড়ি হলেও তারা থাকতেন কালিঞ্চি গ্রামে। তিন-চার দিন আগে মান্নান তার স্ত্রী সোনা বিবিকে নিয়ে বাড়িতে এসেছিলেন। জেলেখালীর লোকজন তাদের খুব একটা চেনে না। তাদের ১০-১১ বছর বয়সের দুটি ছেলে রয়েছে।

প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, আবদুল মান্নান স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যার পর রশিতে ঝুলে আত্মহননের পথ বেছে নিয়েছেন। পারিবারিক কলহের কারণে এ ঘটনা ঘটে থাকতে পারে।

তবে আগের রাতে তাদের মধ্যে ঝগড়া হয়েছিল বলে তিনি জানতে পেরেছেন। তারা দুজনেই সুন্দরবনের নদীতে জাল ফেলে মাছ ধরতেন বলে জানান গ্রামবাসী।

নিহতদের মরদেহ দুটির সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য মান্নান ও সোনাবিবির মরদেহ পাঠানো হবে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে।